মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি অমান্য করে বিকালে এসএসকেএম চত্বরে ডাক্তারদের মিছিল

 

 

মদনমোহন সামন্ত,১৩ই জুন,কলকাতা :
নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সোমবার রাত্রে রোগীমৃত্যুকে কেন্দ্র করে রোগীর পরিজন এবং ডাক্তারদের মধ্যে অসন্তোষের সৃষ্টি হয়। সাময়িকভাবে ঝামেলা মিটে গেলেও পরে রাত্রে মৃতদেহ হস্তান্তর করার সময় জুনিয়র ডাক্তাররা দাবি করেন রোগীর পরিজনরা ক্ষমা না চাইলে মৃতদেহ হস্তান্তর করা হবে না। এতে ঘটনা ক্রমশ জটিল আকার ধারণ করে এবং পরে দু’পক্ষের ধুন্ধুমার মারামারিতে দু’জন জুনিয়র ডাক্তার আহত হন। পরিজনদের পক্ষের পাঁচজন গ্রেপ্তার হন। ঘটনার পর পর জুনিয়র ডাক্তাররা কর্মবিরতি শুরু করেন। তাঁরা মঙ্গলবার থেকে ওপিডি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন। পরবর্তী সময়ে এনআরএস-এর ওপিডি শুধু নয়, সারা রাজ্যের সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে নিরাপত্তার দাবিতে ওপিডি বন্ধ রাখা হয়। পাশাপাশি বহু ক্ষেত্রে অন্যান্য বিভাগ তো বটেই এমারজেন্সিও বন্ধ হয়ে যায়। কিছু ক্ষেত্রে মানবিকতার খাতিরে আবার কিছু ক্ষেত্রে পুলিশের চাপে এমারজেন্সি চালু রাখা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসা পরিষেবা না পেয়ে এসএসকেএম-এ দূরদূরান্ত থেকে আসা রোগীদের পরিজনরা এজেসি বোস রোড অবরোধ করেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে যাওয়ার পথে এসএসকেএম হাসপাতাল পরিদর্শনে যান। সেখানে পৌঁছলে মুখ্যমন্ত্রীকে ঘিরে ডাক্তাররা ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান। ডাক্তাররা স্লোগান দিতে থাকেন । পরে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তারদের হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন দুপুর দু’টোর মধ্যে চিকিৎসা পরিষেবা স্বাভাবিক করতে হবে। তা না হলে জুনিয়র ডাক্তারদের হোস্টেল ছেড়ে দিতে হবে। বিক্ষোভরত ডাক্তারদের মধ্যে অনেকে বহিরাগত বলেও মন্তব্য করেন মুখ‍্যমন্ত্রী। মুখ‍্যমন্ত্রীর হুমকি অমান্য করে এবং নিজেদের নিরাপত্তা দাবি করে এসএসকেএম হাসপাতাল চত্ত্বরে জুনিয়র ডাক্তাররা বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিবাদ মিছিল বের করেন। মিছিলটি হাসপাতাল চত্বরে বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে।

19total visits,1visits today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *