ভদ্রলোকের মত থাকো, না হলে পিটিয়ে ভদ্রলোক কেমন করতে হয় তা আমরা জানি: দিলীপ ঘোষ

 

নিজস্ব প্রতিনিধি,৮ই সেপ্টেম্বর,ঝাড়গ্রাম : বিজেপি কর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা এবং গণতন্ত্র হত্যার প্রতিবাদে রবিবার ঝাড়গ্রাম শহরের পাঁচমাথা মোড়ে বিজেপির একটি সভা হয়।এদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, জেলা সভাপতি সুখময় শপথী সহ জেলার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এদিন সভায় দিলীপ ঘোষ বলেন, ” জেলায় জেলায় বমা বিস্ফোরণ হছে, খুনোখুনি হচ্ছে ।বিরোধীদের হত্যা করা হচ্ছে। গত এক দেড় বছরে শুধুমাত্র বিজেপি করার অপরাধে বিজেপির ৬৫জন কর্মীকে খুন করা হয়েছে।পুলিশ লেলিয়ে দেওয়া হয়েছে।২৮হাজারের উপর কেস!আমার নামেও এখানে ২০-২২ টা কেস দেওয়া হয়েছে।আমি নাকি কাউকে বন্দুক নিয়ে মারতে গিয়েছিলাম! যদি সত্যি সত্যি মারি তাহলে কি হবে? আমরা এখনও হাত তুলিনি তাতেই তৃণমূলের বাড়ি-ঘর ফাঁকা হয়ে গেল। মারতে আরম্ভ করলে জঙ্গলমহলে তৃণমূলের ঝান্ডা বাঁধার লোক পাওয়া যাবে না। তৃণমূল লুপ্তপ্রায় হয়ে গিয়েছে। লুপ্তপ্রায়দের বলছি, ভদ্রলোকের মত থাকো, নাহলে পিটিয়ে ভদ্রলোক কেমন করতে হয় তা আমরা জানি। সাপের মত তৃণমূলের ঘাড় ও কোমর ভেঙে দিয়েছি। কিন্তু লেজটা একটু একটু নড়ছে। এই লেজটা পুরসভা ভোটে বন্ধ করে দেব। পূবর্ মেদিনীপুর থেকে লোক এসে মাতব্বরী দেখালে হবে না। বাইরের লোক নিয়ে এসে যদি গণ্ডগোল করার চেষ্টা করে তাহলে আমি বলে দিচ্ছি, যে যে আসবে এখানে রিগিং করতে মায়ের খাতা থেকে নাম কেটে দিয়ে যেন আসে। যদি লাইফ ইন্সুরেন্স না থাকে তাহলে তা করে দিয়ে আসবে কারণ ছেলেপুলেদের দেখতে হবে তো টাকা পয়সা চাই। আসব ভালো ভাবে, যেতে স্ট্রেচারে না খাটে করে।