Article 370: সুপ্রিম কোর্টে আজ ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আবেদনের শুনানি

Article 370

জম্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের (Article 370) সাংবিধানিক বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা আবেদনের শুনানি হবে আগামী আজ। সুপ্রিম কোর্ট ১১ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখের রায়ে বলেছিল যে জম্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ অনুচ্ছেদটি একটি অস্থায়ী বিধান। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে বহাল রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে একটি রিভিউ পিটিশন দায়ের করা হয়েছিল।

সুপ্রিম কোর্ট জম্মু ও কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদা দেওয়া ৩৭০ ধারা বাতিলের পক্ষে রায় দিয়েছে। ২০১৯ সালের ৫ই আগস্ট মোদি সরকার জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদের প্রভাব সরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি রাজ্যটিকে জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখের দুটি অংশে বিভক্ত করে এবং উভয়কেই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করে দেয়। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে ২৩ টি পিটিশন দায়ের করা হয়েছিল, তাদের সকলের শুনানি শেষে আদালত সেপ্টেম্বরে সিদ্ধান্তটি সংরক্ষণ করে রেখেছিল। ৩৭০ ধারা বাতিলের বিরুদ্ধে সমস্ত আবেদন খারিজ করে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।

বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। ভারতে যোগদানের পর, এটি সার্বভৌমত্বের উপাদান ধরে রাখতে পারেনি। এর জন্য বিশেষ কোনও ব্যবস্থা নেই। জম্মু ও কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা নিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, “কেন্দ্রের প্রতিটি সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করা যাবে না, এটি নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাবে। ৩৭০ ধারা বাতিল করার ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির রয়েছে। বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার অধিকারও তাদের রয়েছে।”

প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ বলেছিল, “আমরা মনে করি যে ৩৭০ ধারাটি একটি অস্থায়ী বিধান এবং একটি অন্তর্বর্তীকালীন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার অন্তর্বর্তীকালীন উদ্দেশ্য পূরণের জন্য চালু করা হয়েছিল। রাজ্যের যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে এটি একটি অস্থায়ী উদ্দেশ্যে করা হয়েছিল। পাঠ্যটি পড়া থেকেও দেখা যায় যে এটি একটি অস্থায়ী বিধান এবং তাই সংবিধানের ২১ নং অংশে রাখা হয়েছে।”

প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে ছিলেন বিচারপতি সঞ্জয় কিষাণ কৌল, সঞ্জীব খান্না, বি আর গাভাই ও সূর্যকান্ত। রায় ঘোষণার সময় প্রধান বিচারপতি চন্দ্রচূড় বলেন, এই মামলায় তিনটি ভিন্ন রায় লেখা হয়েছিল, তবে সমস্ত বিচারপতি একটি সিদ্ধান্তে একমত হয়েছেন।

জম্মু ও কাশ্মীরের স্থানীয় নেতাদের সহ অনেকেই ৩৭০ ধারা অপসারণের বিরোধিতা করে চলেছেন। পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (পিডিপি) সভাপতি মেহবুবা মুফতি জম্মু ও কাশ্মীরের ভোটারদের কাছে চলটি লোকসভা নির্বাচনে তাদের ভোটের মাধ্যমে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিধান বাতিলের বিষয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করার আহ্বান জানিয়েছেন। সোমবার অনন্তনাগ জেলার লার্কিপোরা এলাকায় রাস্তার পাশে এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেহবুবা বলেন, “এটা বিধানসভা নির্বাচন নয়। পিডিপি, ন্যাশনাল কনফারেন্স বা কংগ্রেস জিতবে কি না, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। এই নির্বাচন একটি বার্তা দিতে চলেছে যে ২০১৯ সালে নেওয়া সিদ্ধান্ত এবং তার পরে যা ঘটেছিল তা জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।’

Google news