দিলীপ ঘোষের ওপর হামলার প্রতিবাদে থানায় ডেপুটেশন বিজেপির

খড়দহ থানার সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন বিজেপির।

শুক্লা রায়চৌধুরী, ব্যারাকপুর: দলের রাজ্য সভাপতি, সাংসদ দিলীপ ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে সারা রাজ্যের সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা জুড়ে বিশেষ করে বারাকপুর মহাকুমার প্রতিটি থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি ডেপুটেশন দেওয়ার কর্মসূচি পালন করল বিজেপি।

এদিন খড়দহ থানায় দলীয় এই কর্মসূচীতে নেতৃত্ব দেন রাজ্য বিজেপির সভানেত্রী ফাল্গুনি পাত্র ।থানার আইসির কাছে ডেপুটেশান জমা দিয়ে বেড়িয়ে ফাল্গুনি পাত্র বলেন, “দিলীপ ঘোষ আমাদের রাজ্যের সর্বোচ্চ নেতৃত্ব। রাজ্য বেজেপির সভাপতি এবং একজন সাংসদ । তাঁকে এবং তাঁর সাথে থাকা বিজেপি কর্মীদের উপর যেভাবে আক্রমণ করেছে এবং গাড়ি ভাঙচুর করেছে তৃণমূলীরা সেটা অত্যান্ত লজ্জাজনক এবং ন্যাক্কারজনক ঘটনা । এই রকম ঘটনার দেশের অন্য কোনও রাজ্যে ঘটে বলে আমার জানা নেই।”

তিনি আরও বলেন, চারিদিকে আমাদের কর্মীদের এবং কার্যকর্তাদের উপর নানা রকম কেস দেওয়া হচ্ছে। মারধোর করা হচ্ছে। কোথাও ত্রান দিতে গেলে সেখানেও পুলিশের সাথে তৃনমূলের হার্মাদরা একজোটে আটকে দিচ্ছে। সেখানে এমপি-এমএলএ দেরও রেয়াত করছে না।পশ্চিমবঙ্গে একটা সন্ত্রাসের রাজত্ব চালাচ্ছে তৃণমূল।

তিনি অভিযোগ করে বলেন,  “সোশ্যাল ডিস্টেন্সিং-এর জন্য আমরা যেখানে ভার্চুয়াল সভা করছি। সেখানে এই সরকার বাধ্য করছে আমাদের এইভাবে বাইরে বিক্ষোভ করতে।মানুষ এইসব দেখে আমাদের বিজেপির উপর ভরসা করতে শুরু করেছে, আর এই দেখেই তৃণমূল বুঝতে পেরে গেছে যে তাদের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে ।

আইসি’র সাথে কি কথা হল জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ” আমরা আইসিকে ডেপুটেশান দিয়ে বলে আসলাম, যে শুধুমাত্র এমপি,এমএলএ-ই নয় যেভাবে আমাদের নিরপরাধ ছেলে-মেয়েদের বিনা প্ররোচনায় কেস দেওয়া হচ্ছে, মারধোর করা হচ্ছে এই বিষয় গুলো দয়া করে একটু দেখুন আর যারা অন্যায় করে ঘুরে বেড়াচ্ছে তারা যেন প্রকৃত সাজা পায়।”