লোগো নাকি ‘যোনি’! মিন্ত্রা নিয়ে নালিশে স্তম্ভিত দেশ

নিউজ ডেস্ক: লোগো ডিজাইন নিয়ে বহু বহু বিতর্ক দেখা গিয়েছে এর আগে। কিন্তু তা নিয়ে পুলিশে নালিশ? এমনটা বোধহয় সে ভাবে নজরে পড়েনি। ভারতীয় ফ্যাশন ওয়েবসাইট ‘মিন্ত্রা’র ক্ষেত্রে সেটাই হয়েছে। ‘আপত্তিকর’ লোগো নিয়ে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর তারা সেটা সামান্য বদলেছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো, যে লোগো নিয়ে আপত্তি, তাতে অধিকাংশ মানুষই আপত্তির কিছু দেখছেন না।

ইংরেজি এম শব্দটি ক্যাপিটাল হরফে নির্দিষ্ট ঢঙে লেখা — এটাই তাদের লোগো। বিরোধীদের দাবি, সেটি দেখতে নাকি উলঙ্গ মহিলার যোনির মতো! তাই তা রাখা যাবে না। বস্তুত, অভিযোগের আগে বিষয়টিকে এ ভাবে দেখেনইনি বড় অংশের মানুষ।তবু গত মাসে মুম্বই পুলিশের সাইবার ক্রাইম থানায় এ নিয়ে নালিশ দায়ের হয়। বলা হয়, লোগোটি মহিলাদের জন্য আপত্তিকর ও অসম্মানজনক।

এক মাসের মধ্যে লোগো বদলে ফেলতে সম্মত হয় মিন্ত্রা। সেই মতো ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় তা পরিবর্তন করেছে তারা। তবে তা যৎসামান্য। কমলা ও বেহুনি রঙের দাঁড়িগুলি আর আগের মতো একে অন্যের উপরে রাখা নেই। রঙেও খানিক বদল ঘটানো হয়েছে। ‘আপত্তিকর’ বিষয়টি এড়াতে তারা যে কিঞ্চিৎ বদল ঘটিয়েছে তাতে পুরোনো ও নতুন লোগোর মধ্যে ফারাক বোঝা বেশ কঠিন।

আজব এই কাণ্ডের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় রসিকতা, কটাক্ষের বান ডেকেছে। কেউ জিমেল, কেউ ম্যাকডোনাল্ডস, এমনকী কেউ কমলালেবুর ছবি পর্যন্ত দিয়ে নানা ধরনের মিম শেয়ার করছে।
কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে এই দৃষ্টিভঙ্গি ও তার জেরে ঘটা ঘটনা নিয়ে। এমন একটি অতিসামান্য, বলা যায় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে গুটিকতক মানুষের ‘নোংরা’ মানসিকতার রেশ ধরে একটি সংস্থাকে লোগো বদলাতে হলে তা দেশের অসহিষ্ণুতার ধারাবাহিকতায় নবতম সংযোজন বলে মন্তব্য করছেন বহু বিশেষজ্ঞ।