Loksabha Election 2024: বিজেপির নির্বাচনী ইস্তেহার জারি, মোদির মুখে উন্নত জীবন মানের প্রতিশ্রুতি

BJP Manifesto 2024

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত দিয়ে আজ নির্বাচনী(Loksabha Election2024)ইস্তেহার প্রকাশ করল বিজেপি। উন্নত ভারত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ইস্তেহার জারি করেছে বিজেপি।

 এদিন ইস্তেহার প্রকাশ অনুষ্ঠানে মোদি বলেন, প্রতিটি প্রস্তাবকে গ্যারান্টি হিসাবে দিয়েছে। এটি আরও অব্যাহত থাকবে। এর আগে,বিজেপি ইস্তেহারের খসড়া তৈরি করতে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করেছিল। কমিটি কয়েক দফা বৈঠকের পর এই ইস্তেহার তৈরি করা হয়েছে। সংকল্প পত্র চালু হওয়ার পর দেশের প্রতিটি বিভাগের কিছু লোককে সংকল্প পত্রের একটি করে অনুলিপি দেওয়া হয়েছে।

ইস্তেহার প্রকাশের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর ভাষণে বলেন, “আজ একটি অত্যন্ত শুভ দিন। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে এ সময় পালিত হচ্ছে নববর্ষ। আজ, নবরাত্রির ষষ্ঠ দিনে, আমরা সবাই মা কাত্যায়নীর পূজা করি এবং মা কাত্যায়নী তার দুই বাহুতে একটি পদ্ম ধারণ করেন। তিনি আরও বলেন, “এই কাকতালীয়টাও একটা বড় আশীর্বাদ। এর সাথে যোগ করতে আজ বাবাসাহেব আম্বেদকরের জন্মবার্ষিকী। এমন একটি শুভ সময়ে, আজ বিজেপি দেশের সামনে একটি উন্নত ভারতের ইস্তেহার পেশ করেছে। আমি আপনাদের সকলকে, সমস্ত দেশবাসীকে অভিনন্দন জানাই।”

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছেন যে বিজেপি তার ইস্তেহারে দেশের অখণ্ডতা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করেছে। এই ইস্তেহার উন্নত ভারতের ৪টি শক্তিশালী স্তম্ভ – যুবশক্তি, নারী শক্তি, দরিদ্র এবং কৃষকদের ক্ষমতায়ন করে। মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে, প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছেন যে বিজেপি ইস্তেহার প্রতিটি সংকল্পকে গ্যারান্টি হিসাবে দিয়েছে। আমাদের ফোকাস জীবনের মর্যাদা। বিনিয়োগের চেয়ে চাকরির দিকে নজর দেওয়া হয়েছে। আমাদের ফোকাস জীবন মানের উপর, আমরা উচ্চ মূল্যবোধের পরিষেবাতে ফোকাস করব।

২৫ কোটি মানুষকে দারিদ্র্যতা থেকে বের করে এনে বিজেপি সরকার প্রমাণ করেছে আমরা যেটা বলেছি সেটা শুরু করতে পেরেছি এবং আগামীদিনে আরও বেশি মানুষ সুবিধা পাবে। তিনি আরও বলেন যে, মোদির গ্যারান্টি হল জন ঔষধি কেন্দ্র থেকে ৮০ শতাংশ ছাড়ে ওষুধ পাওয়া যাবে। বিজেপি অঙ্গীকার করেছে যে ৭০ বছরের বেশি বয়সী প্রত্যেক প্রবীণ নাগরিক ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা পাবেন।

বিজেপির ইস্তেহারের উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলি:

  • এক দেশ এক নির্বাচন বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি।
  • নারীবন্দন আইন বাস্তবায়ন করবে।
  • জাতীয় শিক্ষানীতি বাস্তবায়ন করবে।
  • রেলওয়েতে অপেক্ষমাণ তালিকা বাদ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি।
  • সারা বিশ্বে রামায়ণ উৎসবের প্রতিশ্রুতি।
  • ২০৩৬ সালের মধ্যে ভারতে অলিম্পিক আয়োজনের প্রতিশ্রুতি।
  • যোগকে সরকারী সনদ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি।
  • পেট্রোল আমদানি কমানোর প্রতিশ্রুতি।
  • অযোধ্যাকে আরও উন্নত করা হবে।
  • শহরগুলোকে আরও উদার (লিবারাল) করা হবে।
  • আবর্জনা থেকে পরিত্রাণ পেতে এবং ভারতকে পরিচ্ছন্ন করতে মিশন মোডে কাজ করবে।
  • সকলের জন্য বিশুদ্ধ পানীয় জলের প্রতিশ্রুতি।
  • অমৃত ভারত এবং বন্দে ভারত-এর মতো আরও ট্রেন আসবে।
  • শূন্য বিদ্যুৎ বিলের জন্য কাজ করবে।

Google news