Madhya Pradesh: শপথ নিয়েই বিজেপি নেতার হাত কেটে নেওয়া লোকের বাড়িতে ‘বুলডোজার অ্যাকশন’ নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মোহন যাদব

ন্যাশনাল ডেস্ক : মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন বুধবার। ঠিক তার পরদিন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের রুপ দেখালেন মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী মোহন যাদব। বলা যেতে পারে তাঁর দাবাং রূপ দেখছে মধ্যপ্রদেশবাসী। প্রথমদিনেই ধর্মীয় স্থানে মাইকের ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা, বুলডোজার চালানোর নির্দেশ এবং প্রকাশ্যে মাংস বিক্রির উপরে বিধিনিষেধ জারি করেছে মোহন যাদবের সরকার।

গতকাল মধ্যপ্রদেশের ১৯ তম মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়ে একদিন পরে, সিএম মোহন যাদব অ্যাকশনে নামেন । রাজধানী ভোপালে বিজেপি কর্মীর উপর মারাত্মক হামলাকারী অভিযুক্ত ফারুখী রায়নের বাড়িতে বুলডোজার চালিয়ে ভাঙ্গার নির্দেশ দেন। তাঁর নির্দেশ মত স্থানীয় প্রশাসন অভিযুক্তদের বাড়ি ভেঙ্গে দেয়।

CM মোহন যাদব বুলডোজার অ্যাকশন

সূত্রের খবর, দেবেন্দ্র ঠাকুর নামে এক বিজেপি কর্মীর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছিল এলাকার এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। সেই হামলায় হাত কেটে দেওয়া হয়েছিল দেবেন্দ্রের। রাজনৈতিক শত্রুতার জেরেই হামলা হয়েছিল বলে পুলিশের অনুমান। গত ৩ ডিসেম্বর মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) বিধানসভা নির্বাচনে ফল ঘোষণা হয়। ওই দিনই দেবেন্দ্রর উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালানো হয়। গুরুতর জখম অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয় বর্গীয় দেবেন্দ্রকে দেখতে গিয়েছিলেন। এই ঘটনার পর থেকেই এলাকায় একটা চাপা উত্তেজনা ছিল। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তের নাম ফারুখী রায়ন ওরফে মিন্নি।তবে অভিযুক্তর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মোহন যাদব। অভিযুক্তের বাড়িটি দখল করে নির্মাণ করা হয়েছে এবং তিনি পৌর কর্পোরেশনের নিয়ম লঙ্ঘন করে বাড়িটি নির্মাণ করেছেন। এই বিষয়টি জানার পরই তিনি অভিযুক্তদের বাড়িতে বুলডোজার চালানোর নির্দেশ দেন। তারপরে স্থানীয় প্রশাসন অভিযুক্তদের বাড়ি ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়।

CMমোহন যাদব উদাহরণ তৈরি করছেন, গুন্ডামি চলবে না

অভিযুক্ত ফারুখী রায়নের বাড়ি ভোপালের ১১ নম্বর জনতা কলোনিতে। বর্তমানে সেখানে বুলডোজার দিয়ে দখল উচ্ছেদের প্রক্রিয়া চলছে। মুখ্যমন্ত্রী মোহন যাদব এই পদক্ষেপের মাধ্যমে বার্তা দিচ্ছেন যে এখন রাজধানী ভোপাল বা মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh)  অন্য কোনও শহরই গুন্ডামি চলবে না। মোহন যাদব যেভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, তার কারণে লোকেরা তাকে কট্টর হিন্দুত্ববাদী এজেন্ডা অনুসরণ করছে বলে সন্দেহ করছে। লোকেরা বলছে যে সিএম মোহন যাদবের প্রতিটি সিদ্ধান্তই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের দ্বারা প্রভাবিত।

Google news