মমতার নির্দেশে ‘খাদ্য সাথী’র আওতায় বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ঘোষণা খাদ্য দফতরের

প্রতীকী ছবি।

শুক্লা রায় চৌধুরী,কলকাতাঃ কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ওপর টেক্কা দিয়ে আগামী একবছর বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছিলেন, “২০২১ এর জুন পর্যন্ত এ রাজ্যে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে।”

আগের রেশ ধরেই শহিদ দিবস ২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ থেকেও ফ্রিতে রেশন দেওয়ার কথা বলেছেন মমতা। মমতা বলেন, “তৃণমূল থাকলে বিনামূল্যে রেশন পাবেন সবাই। তৃণমূল ফিরলে সারাজীবন বিনামূল্যে রেশন পাবেন।বরাবরই কেন্দ্র প্রতারিত করেছে বাংলার সাথে।বঞ্চিত হয়েছে বাংলা। এখনও তার উল্টোটা হয়নি।প্রধানমন্ত্রী এলেন, বাংলা প্রাপ্য পেলেন কই?”

 এদিকে গতকালের মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পরই এবার নড়েচড়ে বসল রাজ্যের খাদ্য দফতর। ‘খাদ্য সাথী’-র আওতায় এনে রাজ্যের সকল মানুষকে এক বছরের জন্য বিনামূল্যে রেশনের ব্যবস্থা করা হল আপাতত। ২০২০ আগস্টের থেকে জুন ২০২১ পর্যন্ত এই নির্দেশ বহাল থাকবে। সেই নির্দেশ রাজ্যের সব খাদ্য দফতরে পৌঁছে গেছে।

প্রসঙ্গত, ২০২১-এর মে মাসেই আছে বিধানসভা নির্বাচন। সেই নির্বাচনকেই পাখির চোখ করে ঘুঁটি সাজাচ্ছে শাসক থেকে বিরোধী দল। পৌঁছে যাচ্ছে একের পর এক নির্দেশ। মানুষের স্বার্থে জন কল্যাণমূলক কাজে ব্রত সকলে।

একদিকে মমতা যেখানে ২০২১-এ জিতবে বলে আশাবাদী, সেখানেই বঙ্গ বিজেপি গদিতে আসার লড়াই চালাচ্ছে। বাংলায় মূলত দ্বিমুখী লড়াই চলছে। তৃণমূলের বিরুদ্ধে পাল্টা লড়াই দিতে প্রস্তুত হচ্ছে বিজেপি। এমনকি সেই রণকৌশল ঠিক করতে দিল্লি উড়ে গেছেন বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব।