টালিগঞ্জে ফ্ল্যাট থেকে মিলল মায়ের পচা-গলা দেহ, ছেলে থাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিনিধি,কলকাতাঃ   টালিগঞ্জের অভিজাত এলাকায় বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে গভীর রাতে উদ্ধার হল বৃদ্ধার পচা-গলা দেহ। রবিবার রাতে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ায় টালিগঞ্জের রানি ভবানী রোডে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, বেশ কয়েকদিন আগে মৃত্যু হয়েছে বৃদ্ধার। তাঁর ছেলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বলে জানা গিয়েছে।

সন্ধ্যারানি দাস নামে ওই মহিলার স্বামী কয়েক বছর আগে প্রয়াত হন। তার পর থেকে ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন মহিলা। সম্প্রতি করোনার উপদ্রব বাড়ায় পরিচারিকাকে আসতে বারণ করেছিলেন তিনি। রবিবার রাতে ঘরের খাট থেকে বৃদ্ধার পচা-গলা দেহ উদ্ধার হয়।

প্রতিবেশীরা জানান, দিন কয়েক ধরেই এলাকায় দুর্গন্ধ বেরোচ্ছিল। রবিবার বিকেলের পর তা প্রকট হয়। গন্ধের উৎস খুঁজে বোঝা যায় তা আসছে সন্ধ্যারানি দেবীর বাড়ি থেকে। এর পর তাঁকে ডাকাডাকি করে সাড়া না মেলায় খবর দেওয়া হয় পুলিশে।

পুলিশ এসে দরজা ভেঙে বাড়িতে ঢোকে। দেখা যায়, খাটের ওপর পড়ে রয়েছে বৃদ্ধার দেহ। দুর্গন্ধে শ্বাস নেওয়া দুষ্কর। পচন ধরায় দেহের থেকে খসে পড়তে শুরু করেছে চামড়া।কোনওক্রমে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠান পুলিশকর্মীরা। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বৃদ্ধাকে বহুদিন এলাকায় দেখেননি তাঁরা। তবে মায়ের মৃত্যু পর দেহে পচন ধরলেও ছেলে খোঁজ পেলেন না কেন সেই প্রশ্ন উঠছে। বৃদ্ধার ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছে পুলিশ।