Lok Sabha Election 2024: নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য চলাকালীন মঞ্চেই অজ্ঞান হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

Nitin Gadkari faints

মুম্বাই:দেশজুড়ে শুরু হয়েছে লোকসভা নির্বাচন (Lok Sabha Election 2024)। ইতিমধ্যেই প্রথম দফার ভোট সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ২৬ এপ্রিল রয়েছে দ্বিতীয় দফার ভোট। তাপদাহকে উপেক্ষা করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে জোরকদমে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বরা। এই তাপপ্রবাহের মধ্যেই ঘটে গেল বিপত্তি। ভোট প্রচার চলাকালীন মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা প্রবীণ বিজেপি নেতা নীতিন গড়করি। বুধবার মহারাষ্ট্রে একটি জনসভায় যোগ দিয়েছিলেন তিনি। সভা চলাকালীন আচমকা জ্ঞান হারান তিনি। দ্রুততার সাথে শুরু হয় তাঁর চিকিৎসা।

বুধবার বিকেলে মহারাষ্ট্রের ইয়াভাতমালের পুসাদে একটি নির্বাচনী সমাবেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তড়িঘড়ি মঞ্চে থাকা দলীয় নেতারা এবং দায়িত্বে থাকা তাঁর দেহরক্ষীরা তাৎক্ষণিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। তবে অল্প বিরতির পর ফের মঞ্চে ফিরে এসে তার নির্বাচনী বক্তব্য চালিয়ে যেতে সক্ষম হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করি। যদিও দীর্ঘদিন ধরেই সুগারের সমস্যা থাকায় এর আগেও একাধিকবার রাজনৈতিক কর্মসূচি চলাকালীন তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।  তাঁর বক্তব্য শেষ করার পরপরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এক্স (পূর্বে টুইটার) এ পোস্ট করেন।

তিনি লেখেন, “মহারাষ্ট্রের পুসাদে সমাবেশে আমি গরমের কারণে অস্বস্তি অনুভব করেছি। কিন্তু এখন আমি সম্পূর্ণ সুস্থ এবং পরবর্তী সভায় যোগ দিতে ওয়ারুদে যাচ্ছি। আপনাদের ভালবাসা এবং শুভ কামনার জন্য ধন্যবাদ।”

উল্লেখ্য, নাগপুর লোকসভা আসন থেকে বিজেপি প্রার্থী হিসাবে ভোটের প্রথম পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বিজেপির এই প্রবীণ নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্র নীতিন গড়করি। এদিন এনডিএ জোটের একনাথ শিন্ডের নেতৃত্বাধীন শিবসেনা নেত্রী রাজশ্রী পাতিলের হয়ে ইয়াভাতমালের পুসাদে প্রচার করছিলেন তিনি।

সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, ‘আমি আত্মবিশ্বাসী যে, উন্নয়নের প্রতি ঝুঁকে থাকা যবতমাল জেলার মানুষ সর্বাত্মক উন্নয়নে বিশ্বাসী যা বিজেপি-মহাজোটকে জয় এনে দেবে।’

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে একটি উন্নত ভারতের দিকে অগ্রসর হওয়া, বিগত ১০বছরে সারা দেশে রাস্তা ও মহাসড়কের পাশাপাশি শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য কাজ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন পরিকল্পনা সফলভাবে গ্রামীণ এলাকায় প্রসারিত হয়েছে। এর ফলে শহরের পাশাপাশি গ্রামাঞ্চলের মানুষ অনেক গুরুত্বপূর্ণ সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন।

দ্বিতীয় দফা, অর্থাৎ ২৬ এপ্রিল মহারাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি আসনে ভোট হবে। যবতমাল ছাড়াও ওই দিন বুলধানা, আকোলা, অমরাবতী, ওয়ার্ধা, হিঙ্গোলি, নান্দেদ এবং পারভানি আসনে নির্বাচন হবে। গোটা দেশের মতই মহারাষ্ট্রের পূর্ব-মধ্য অঞ্চলের বিদর্ভে অবস্থিত যবতমালে তীব্র তাপপ্রবাহ চলছে। আবহাওয়া দফতর আগামী কয়েক দিন মহারাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে।

Google news