খুঁটি পুজোর মধ্যে দিয়ে পুজোর প্রস্তুতি শুরু বরাহনগর ‘কালাকার পাড়া পূজা সম্মিলনী’ র

পল্লব হাজরা, বরাহনগরঃ  ভাল চাষবাসের জন্য চাই জল। একটু দেরি করে হলেও এবছর কিন্তু বেশ ভালই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। ভারি বর্ষণের ফলে বিভিন্ন জেলায় বন্যার সৃষ্টিও হয়েছে। তবে বিজ্ঞান যাই বলুক না কেন প্রচলিতরীতি অনুযায়ী এবছর রাজ্য তথা দেশে শস্যবৃদ্ধিস্তথাজলম্ অর্থাৎ অধিক পরিমাণ শস্যফলন হবে তার কারণ, বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে এবার দেবী দুর্গা’র আগমন নৌকায়।

নিম্নচাপের ভ্রূকুটি থাকলেও বাতাসে ভেসে আসছে মায়ের আগমনী গান। মাঝে মাঝে উঁকি দেওয়া শরৎকালীন নীল আকাশ  জানান দিচ্ছে পূজোর আর মাত্র ক’টা দিন বাকি। তাই নিম্নচাপকে উপেক্ষা করেই একের পর এক খুঁটি পুজো শুরু হয়ে গিয়েছে বরাহনগরে। উত্তর শহরতলীর অন্যান্য পুজো মন্ডপ গুলির মধ্যে বরাহনগর ‘কালাকার পাড়া পূজা সম্মেলনী’ দর্শকদের মনে আলাদা স্থান করে নিয়েছে।

রবিবার ‘খুঁটি পুজো’ অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে ঢাকের বাদ্যি বেজে উঠলো পুজা প্রাঙ্গণে। এদিন অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন দমদম লোকসভার সাংসদ অধ্যাপক সৌগত রায়, বরাহনগরের বিধায়ক তাপস রায়, প্রখ্যাত ফুটবল খেলোয়াড় সুব্রত ভট্টাচার্য্য , রঞ্জন ভট্টাচার্য্য, বরানগর পুরসভার কো ওর্ডিনেটার দিলীপ নারায়ণ বসু, অঞ্জন পাল, রামকৃষ্ণ পাল , সমাজসেবী শংকর রাউত সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব। এদিন করোনা আবহে মানুষকে সচেতন করতে ছিল এক অভিনব প্রচার।
‘করোনা কে দূরে ঠেলে পৃথিবী সুস্থ হয়ে উঠুক’ এদিনের প্রত্যেক বক্তার এই প্রার্থনা বক্তব্যের মাঝে উঠে আসে।

Google news