Ration Scam: ED দপ্তরে হাজিরা ঋতুপর্ণার! রেশন দুর্নীতি নিয়ে কি উঠে আসবে কোনও অজানা তথ্য?

রেশন দুর্নীতি (Ration Scam) মামলায় জবাবদিহি করতে সিজিও কমপ্লেক্সে হাজির হলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত । এদিন দুপুরে সিজিও কমপ্লেক্সে যান অভিনেত্রী। গত মাসে তাঁকে সমন পাঠানো হয়েছিল। সেই সময় মেল মারফত অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, বিদেশে থাকার কারণে তাঁর পক্ষে দেখা করা সম্ভব হচ্ছে না। দেশে ফিরেই তিনি ইডি কর্তাদের সঙ্গে দেখা করবেন।

প্রাথমিক খবর অনুযায়ী, ব্যাঙ্কে লেনদেনের তথ্যর উপর ভর করেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিনেত্রীকে ইডি তলব করেছে। এই প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে এর আগে ঋতুপর্ণা বলেছিলেন, “খুব অবাক হয়েছি শুনে। আমি এ ব্যাপারে সত্যিই কিছু জানি না। রেশন দুর্নীতি(Ration Scam) কী? সে সম্পর্কে আমার কোনও ধারণাই নেই। এর পরই আবার ঋতুপর্ণা বলেন, “সামনে আমার অনেকগুলো ছবির মুক্তি রয়েছে। তার মাঝে এমন খবর, মোটেই আমার জন্য ভালো নয়। আমার সম্মানহানি হল। সারাজীবন পরিশ্রম করছি। হঠাৎ করে আমার নামে এমন বলে দেওয়া খুবই অন্যায়।”

আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করেই ইডির সমনের উত্তর দেবেন বলে জানিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা। দেশে ফিরে ‘অযোগ্য’ সিনেমার মুক্তি ও প্রচারের কাজ সেরেছেন অভিনেত্রী। প্রসেনজিৎ ও তাঁর জুটির পঞ্চাশতম ছবি এটি। এখনও সিনেমা হলে চলছে ‘অযোগ্য’। প্রচার, শুটিংয়ের কাজ সামলেই বুধবার ইডি দপ্তরে হাজির হন অভিনেত্রী।

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে রোজভ্যালিকাণ্ডে তদন্তকারী সংস্থা ইডি জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল। একসময় রোজভ্যালি বেশ কিছু বাংলা ছবি প্রযোজনা করেছিল। যে ছবির কয়েকটি অভিনয়ও করেছিলেন ঋতুপর্ণা। সেই সূত্রেই ঋতুপর্ণার সঙ্গে সংস্থার কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর যোগাযোগ হয়েছিল বলে ইডির তরফে সে সময় জানানো হয়েছিল।

Google news