Lottery Winner: ভাগ্য বদলাতে লাগল ৮৮ বছর! ৫ কোটি টাকা লটারিতে জিতলেন পঞ্জাবের বৃদ্ধ

             লটারি মানুষের ভাগ্য বদলে দেয়, তাই ভাগ্য বদলাতেই লটারি কেনে মানুষ

 

খবরএইসময়, ওয়েব ডেস্ক: লটারি মানুষের ভাগ্য বদলে দেয়। আসলে তো ভাগ্য বদলাতেই লটারি কেনে মানুষ। পঞ্জাবের রাজ্য লহরি মকরসংক্রান্তি বাম্পার লটারিতে ভাগ্যটা অনেকটা দেরিতে হলেও বদলে দিল দেরাবাস্সির বৃদ্ধের। এক নয়, দুই নয়, একেবারে ৫ কোটি টাকা লটারিতে জিতলেন ৮৮ বছরের পঞ্জাবের বৃদ্ধ মহন্ত দ্বারক দাস। লটারি জেতার পর হাসি মুখে মহন্ত বললেন, যাক, ভাগ্যটা মৃত্যুর আগে অবশেষে চমকালো। ২০-২৫ বছর ধরে লটারি কিনছেন। অবশেষে ভাগ্য তাঁর দিকে মুখ চেয়ে তাকাল।

মহন্তের ছেলে নরেন্দ্র শর্মা বললেন, “বাবা সেদিন ভাইপোকে ডেকে টাকা দিয়ে বলল যা লটারির টিকিটটা কিনে নিয়ে আয়। আমাদের ভাগ্য বদলাতে হবে। সেই কথাটা যে এইভাবে মিলে যাবে আমরা কেউ ভাবিনি। বাবার কথা ভেবে খুব ভাল লাগছে। সারাজীবন অনেক কষ্ট করেছেন বাবা। এটা ভগবান হয়তো তারই পুরস্কার দিলেন।”

লটারিতে জেতা ৫ কোটি টাকা এবার কীভাবে খরচ করবেন? হাসতে হাসতে মহন্ত বললেন, “করার তো অনেক কিছুই আছে, সারাজীবন অনেক কিছুই করতে পারিনি। তবে সবার আগে পরিবার আর আমার ডেরা। গত ৩৫-৪০ বছর ধরে লটারির টিকিট কাটছি। এবার জিতেছি দেখে ভাল লাগছে। জেতার টাকা আমি আমার দুই ছেলেকে এবং আমার ডেরাকে দান করে যাবো।”

পঞ্জাবের রাজ্য লটারির সহ অধিকর্তা করম সিং জানালেন, ৮৮ বছরের মহন্ত দ্বারকা দাস বাম্পার লটারিতে ৫ কোটি টাকা জিতেছেন। এবার তাঁর জয়ী অর্থ থেকে ৩০% কর কেটে ওনার হাতে তুলে দেওয়া হবে।” তাঁর মানে কর কেটে নেওয়ার পর লটারিতে ৮৮ বছর বৃদ্ধ হাতে পাবেন সাড়ে ৩ কোটি টাকা।

Google news