Maniktala By Election: ভোটকেন্দ্র খুঁজে পাচ্ছিলেন না বিজেপি প্রার্থীর মা, সাহায্য করলেন তৃণমূল কাউন্সিলর

তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ এবং মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে (Maniktala By Election) বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবের মধ্যে ‘কথার লড়াই’কে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার থেকেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। ভোটের উত্তাপকে কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে দুই নেতার ‘বাগ্‌যুদ্ধ’। সেই আবহেই বুধবার সকাল থেকে মানিকতলা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে। বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনার অভিযোগ উঠেছে। তবে বুধবার এই বিধানসভা কেন্দ্রেই দেখা গেল ‘অন্য ছবি’। বিজেপি প্রার্থীর মাকে ভোট দেওয়াতে সাহায্য করতে এগিয়ে এলেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর।

বুধবার বেলার দিকে মানিকতলা বিধানসভা (Maniktala By Election)কেন্দ্রের অন্তর্গত ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে ভোট দিতে এসেছিলেন কল্যাণের মা সন্ধ্যা চৌবে। সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা ভোট দিতে এলেও সঙ্গে ‘ভোটার স্লিপ’ ছিল না। তাঁর দাবি, তিনি সেটা আনতে ভুলে গিয়েছেন। ফলে কোন বুথের কোন পার্টে ভোট দিতে যাবেন তিনি তা নিয়ে ধন্দে পড়েন। বিষয়টি নজরে আসতেই এগিয়ে আসেন মানিকতলার তৃণমূলের মুখ্য নির্বাচনী এজেন্ট তথা ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অনিন্দ্যকিশোর রাউত।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী সুপ্তি পাণ্ডের নির্বাচনী এজেন্ট অনিন্দ্য রাউত বলেন, “আগে তাঁরা এই এলাকায় থাকতেন ৷ এখন এখানে থাকেন না ৷ তাই ভোট কেন্দ্র চিনতে পারছিলেন না ৷ এই অবস্থায় আমরা সাধারণত সব ভোটারকেই সাহায্য করি ৷ তিনি (কল্যাণ চৌবের মা সন্ধ্যা চৌবে) যখন এভাবে দিশেহারা হয়ে ঘুরছেন, তখন আমরা তাঁকে সাহায্য করেছি মাত্র ৷ এটা তো আমাদেরও দায়িত্ব ৷”

ভোটের আগের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার সকালে কল্যাণ চৌবের বিরুদ্ধে ভোটে সাহায্য চাওয়ার অভিযোগ করেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ ৷ এর বদলে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কল্যাণ চৌবে কুণালকে রাজ্য বা জাতীয় স্তরে সাহায্য় করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন, এও দাবি করেন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক ৷

Google news